Loading...
উত্তরকাল > Content page > উত্তরবঙ্গ > রাজশাহীতে স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

রাজশাহীতে স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

পড়তে পারবেন 1 মিনিটে

।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে গ্রাম্য সালিশে বাবাকে দিয়ে জুতাপেটা করায় লজ্জায় এক স্কুলছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার নাম জসিম উদ্দিন (১৫)। সে উপজেলার সাহাব্দিপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। জসিম পিরিজপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

বুধবার (১৫ মে) দুপুরে উপজেলার সরমংলা খাঁড়ির পাশের একটি গাছে তার লাশ ঝুলতে দেখেন স্থানীয়রা। এরপর পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পিরিজপুর এলাকার এক স্কুলছাত্রীর সঙ্গে জসিমের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পিরিজপুর এলাকার মাঠে তারা দুজন দেখা করে। তখন স্থানীয়রা তাদের একটি বাড়িতে আটকে রাখে। পরে রাতেই গ্রাম্য সালিশ বসানো হয়। সেখানে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য রফিকুল ইসলাম জসিমের বাবাকে দিয়ে তাকে জুতাপেটা করান।

এরপর আর রাতে বাড়ি ফেরেনি জসিম। লোকলজ্জায় রাতেই সরমংলা খাঁড়ির পাশের একটি গাছে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয় সে। ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম সালিশ বৈঠক করার কথা স্বীকার করেছেন। তবে সেখানে জসিমকে জুতাপেটা করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। থানায় নিহত স্কুলছাত্রের বাবার সঙ্গে কথা হচ্ছে। সব বিষয় জেনে আইনত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আর ময়নাতদন্তের জন্য জসিমের লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

সবশেষ আপডেট

উত্তরকাল

বিশ্বকে জানুন বাংলায়

Follow US

All original content on these pages is fingerprinted and certified by Digiprove
%d bloggers like this: