।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

 চীন-তাইওয়ানের মধ্যে ঘোরতর যুদ্ধ কার্যত এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র- এমটাই মনে করছেন সমর বিশেষজ্ঞরা! সম্প্রতি মার্কিন সামরিক গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত জলসীমা নিয়ে চীন ও তাইওয়ানের মধ্যে ফের উত্তেজনার জেরে তাইওয়ানে হামলার জন্য সাগরে মোতায়েন সামরিক ব্রিগ্রেড দুটি থেকে বাড়িয়ে ছয়টিতে উন্নীত করেছে চীন।

এদিকে, তাইওয়ান দীর্ঘদিন ধরে দক্ষিণ চীন সাগর দখল নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলছে। সাগরের কিছু অংশকে নিজেদের বলে দাবি করছে দুই পক্ষই। তাইওয়ানের অভিযোগ, প্রভাব বিস্তারের জন্য বেইজিং সাগরের কিছু দ্বীপে অনুপ্রবেশ করেছে।

চীনের সামরিক ক্ষমতা সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা (ডিআইএ) দেশটির কংগ্রেসকে দেয়া এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, চীন তাইওয়ানের স্বাধীনতা বাতিল করে তাদেরকে মূল ভূখন্ডের বাহিনীতে যোগ দিতে বাধ্য করবে।

প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) তাইওয়ান প্রণালীতে সম্ভাব্য হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। তাছাড়া যদি প্রয়োজন পড়ে তাহলে তাইওয়ানের স্বাধীন সত্তা বাতিল করে চীনের মূল ভূখন্ডের সঙ্গে যুক্ত করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ওই সামরিক গোয়েন্দা প্রতিবেদনে আরও বলা হচ্ছে, চীনা সেনাবাহিনী (পিএলএ) তাইওয়ানকে সব রকমের চাপ প্রয়োগ করে চীনের মূল ভূখন্ডের সঙ্গে যুক্ত করার জন্য সম্ভাব্য হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বাংলাদেশ প্রত more...
All Rights Reserved