Loading...
উত্তরকাল > Content page > উত্তরবঙ্গ > ডাইনিং-ক্যান্টিন বন্ধে বিপাকে রাবি শিক্ষার্থীরা

ডাইনিং-ক্যান্টিন বন্ধে বিপাকে রাবি শিক্ষার্থীরা

পড়তে পারবেন 2 মিনিটে

।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ।।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো খোলা থাকলেও ডাইনিং বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। ডাইনিংয়ের পাশাপাশি ১৭টি আবাসিক হলের মধ্যে ১৩ টিতেই ক্যান্টিন বন্ধ রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোমবার ঝড়-বৃষ্টির কারণে রাত আটটা থেকে তিনটা পর্যন্ত ক্যাম্পাসে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭টি হলেরই ডাইনিং বন্ধ রয়েছে। তবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, শাহ্ মখদুম হল, শহীদ হবিবুর রহমান হল, মাদার বখশ্ হলের ক্যান্টিন চালু ছিল।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ক্যান্টিনগুলোতে অন্য হলের শিক্ষার্থীদের চাপ বেড়ে গেছে। ফলে শিক্ষার্থীদের খাবার গ্রহণে রীতিমতো প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে হচ্ছে। কাউকে আবার হলের বারান্দায় কাঠ, কাগজ পুড়িয়ে ভাত রান্না করার চেষ্টা করতে দেখা গেছে। আবার কেউ সেহরির সময় শুকনো খাবার খেয়েই রাত পার করছেন।

শহীদ জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী শামিম রেজা বলেন, হলের ডাইনিং-ক্যান্টিন বন্ধ থাকায় বাধ্য হয়ে রান্না করে খেতে হচ্ছে। এই তীব্র গরমে রোজা রেখে রান্না করা খুবই কষ্টকর। এর আগে কখনও এমন বিড়ম্বনায় পড়তে হয় নি।

নবাব আব্দুল লতিফ হলের এক শিক্ষার্থী বলেন, ক্যান্টিনে খাবার না পেয়ে হোটেলে যাই। কিন্তু সেখানেও খাবার শেষ হয়ে গেছে বলে জানানো হয়। পরে আধাঘণ্টা অপেক্ষা শেষে ভাত রান্না হলে খাবার পাই। তবে তা পর্যাপ্ত ছিল না। ফলে অনেকেই খাবার না পেয়ে চলে যায়। এটা আমাদের জন্য চরম দুর্ভোগের বিষয়।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলের এক শিক্ষার্থী বলেন, ডাইনিং বন্ধ থাকায় খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। রান্না করেই খেতে হয়।

জানতে চাইলে হল প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক ড. আমিনুল ইসলাম বলেন, ছুটির কারণে ডাইনিং বন্ধ রয়েছে। তবে যেসব হলে ক্যান্টিন আছে সেগুলো আমার জানা মতে খোলা আছে। যদি কোনো ক্যান্টিন বন্ধ থাকে সেটি সংশ্লিষ্ট হলের প্রাধ্যক্ষ বলতে পারবেন।

এদিকে পবিত্র রমজান-ঈদুল ফিতর ও গ্রীষ্মকালীন ছুটি উপলক্ষে রাবিতে ৮ মে থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত টানা ৪৭ দিনের এ ছুটি শুরু হয়েছে। ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল কার্যক্রম চলবে পহেলা জুন পর্যন্ত। পরে ২ জুন থেকে ২২ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। আগামী ৩০ মে থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত আবাসিক হলগুলো বন্ধ রাখতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে প্রাধ্যক্ষ পরিষদ থেকে সুপারিশ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ব্যাপারে দ্রুতই সিদ্ধান্ত নিবে বলে জানা গেছে।

সবশেষ আপডেট

উত্তরকাল

বিশ্বকে জানুন বাংলায়

Follow US

All original content on these pages is fingerprinted and certified by Digiprove
%d bloggers like this: