Berger Viracare

।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

পাটকল শ্রমিকরা যে আন্দোলন গড়ে তুলেছে তা ন্যায়সঙ্গত বলে মনে করেন রাজশাহী-২ আসনের (সদর) সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা।

শনিবার (১১ মে) রাজশাহী জুটমিলের আন্দোলনরত শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন। বেতন-ভাতা আদায়ে দীর্ঘদিন থেকে বাংলাদেশের সরকারি পাটকল শ্রমিকরা দীর্ঘদিন থেকে আন্দোলন করে আসছেন।

ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, ঈদের ১৫ দিন আগে পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া বেতন-ভাতা দিতে হবে সরকারকে, পাট মন্ত্রণালয়কে।

অবহেলার কারণে পাট শিল্পের পাশাপাশি শ্রমিকরা সংকটে পড়েছেন উল্লেখ করে সাংসদ বলেন, খবর পাচ্ছি সাড়ে সাতশ কোটি টাকার পাটজাত পণ্য উৎপাদিত হয়ে গোডাউনে পড়ে আছে। এই টাকা যদি পাট মন্ত্রণালয়ের ঘরে আসে তবে বাংলাদেশের একটি শ্রমিকও বেতন থেকে বঞ্চিত হবে না।

পাটকল শ্রমিকরা ৫ মাস বেতন পায় না বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাটশিল্পের উন্নয়নে ও শ্রমিকদের পেটে ভাতের ব্যবস্থা করার জন্য প্রয়োজনে দুই-এক ডলার কমে পাট পণ্য রফতানি করা হোক।

বাদশা বলেন, বিভ্রান্তকর নীতির কারণে পাটশিল্প আজ ধ্বংস হতে চলেছে। বাংলাদেশের পাটশিল্পকে বাঁচাতে হবে। মনে রাখতে হবে এই পাটশিল্পের সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষের জীবনের সম্পর্ক, মুক্তিযুদ্ধের সম্পর্ক। পাকিস্তানি শোষকদের বিরুদ্ধে এই দেশে যত সংগ্রাম হয়েছে পাটশিল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত শ্রমিকরা এতে অংশগ্রহণ করেছে। আর এই শিল্পকে ধ্বংস করার অধিকার কারো নেই।

এসময় তিনি শ্রমিকদের আশ্বস্ত করে বলেন, রাজশাহী জুটমিলের শ্রমিকরা যে বার্তা আমাকে দিলো, তা আমি আগামী কালই পাট মন্ত্রণালয়ে পৌছে দেব। মন্ত্রণালয় যদি না মানে তবে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌছানোর জন্য ব্যবস্থা করবো।