।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা লংঘনের অভিযোগে উত্তর কোরিয়ার একটি কার্গো জাহাজ জব্দ করার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। জাহাজটি কয়লা পরিবহনে ব্যবহার করা হতো, জানিয়েছে মার্কিন বিচার বিভাগ। কয়লা উত্তর কোরিয়ার বৃহত্তম রপ্তানি পণ্য হলেও এর ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা আছে। বিবিসি বলছে, ‘ওয়াইজ অনেস্ট’ নামের এ জাহাজটি ২০১৮ সালের এপ্রিলে ইন্দোনেশিয়ায় প্রথম আটক হয়। ওই বছরের জুলাইয়ে যুক্তরাষ্ট্র সেটি জব্দের আবেদন করে। আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা লংঘনের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্র এবারই প্রথম উত্তর কোরিয়ার কোনো জাহাজ জব্দ করল।

ফেব্রুয়ারিতে ভিয়েতনামের হ্যানয়ে দুই দেশের শীর্ষ বৈঠক ভেস্তে যাওয়ার পর গত সপ্তাহেই পিয়ংইয়ং দুই দফা স্বল্প মাত্রার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাও চালিয়েছে। ওয়াশিংটনের ওপর চাপ বাড়ানোর কৌশল হিসেবেই তারা এটি করছে বলে ধারণা বিশ্লেষকদের। জাহাজ জব্দের সঙ্গে এসব পরীক্ষার কোনো সম্পর্ক নেই, জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।  

“ওয়াইজ অনেস্ট জাহাজটির নিবন্ধনের তথ্য গোপন করে উত্তর কোরিয়া তাদের উন্নত মানের কয়লা বিদেশিদের কাছে বিক্রি করেছে বলে আমাদের অফিস জানতে পেরেছে,” বলেছেন মার্কিন কৌঁসুলি জিওফ্রে এস বারমেন।

জাহাজটির মাধ্যমে ভারী যন্ত্রপাতি আমদানি করে উত্তর কোরিয়া তাদের সক্ষমতা আরও বাড়িয়েছে এবং এটি পিয়ংইয়ংকে বারবার নিষেধাজ্ঞা এড়ানোর সুযোগ করে দিয়েছে বলেও অভিযোগ তার। মার্কিন ব্যাংক হিসাবে ডলারের মাধ্যমেই জাহাজটির রক্ষণাবেক্ষণ খরচ দেয়া হতো, যা যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষকে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার সুযোগ করে দিয়েছে।

পরপর দুই দফা উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা এবং যুক্তরাষ্ট্রের জাহাজ জব্দের ঘটনাকে দুই দেশের নাজুক সম্পর্কের বহিঃপ্রকাশ হিসেবেই দেখছেন পর্যবেক্ষকরা। দুই দেশ ফের বৈরিতার পথে হাঁটছে বলেও অনুমান তাদের।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বাংলাদেশ প্রত more...
All Rights Reserved
Berger Viracare