Zee5 Contract Coming Soon

।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ।।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর স্থানীয়দের হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার (০৭ মে) রাতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের আইন বিভাগের সভাপতি ইমরান আকাশ বাদি হয়ে মতিহার থানায় এ মামলা দায়ের করেন। এতে ছয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার (০৮ মে ) সকালে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন বলেন, মঙ্গলবার রাতে ইমরান হোসেন বাদি হয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ১০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করেন। আজ সকালে অভিযান চালিয়ে আশিষ (২৪) নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে মামলার কাজের সুবিধার্থে কারো নাম ও পরিচয় প্রকাশ করছি না। বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, আমাদের দুইজনকে মারধর করা হয়েছে। আমরা তাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করেছি। তাদের চিকিৎসা চলছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. লুৎফর রহমান বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। এভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে মারধর করা অত্যন্ত অপরাধের কাজ। পুলিশ এই বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নিবে বলে আমি আশা করছি।

প্রসঙ্গত, ছাত্রলীগ নেতা কানন ও মেহেদীর নের্তৃত্বে ৭ মে রাত নয়টার দিকে ছয়-সাতজন ছাত্রলীগ কর্মী লিচু বাগানে যায়। এসময় বাগানে থাকা প্রহরীরা লিচু খেতে নিষেধ করলে দুই পক্ষের মধ্যে প্রথমে বাকবিতণ্ডা হয় এবং পরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে কানন, মেহেদী, ইমরানসহ সাত ছাত্রলীগ নেতাকর্মী আহত হয়। পরে ওইদিন রাত সাড়ে ১২টার দিকে ছাত্রলীগের আইন বিভাগের সভাপতি ইমরান বাদি হয়ে মতিহার থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ১০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করেন।