।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় আগ্রাসন জোরালো করেছে ইসরায়েল। হামাসসহ ফিলিস্তিনি জাতি-মুক্তি আন্দোলনের সংগঠনগুলো ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট হামলা চালিয়ে তার জবাব দিচ্ছে। শুক্রবার গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনি বিক্ষোভ থেকে নতুন করে এই লড়াই শুরু হয়। ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, ফিলিস্তিনের অভ্যন্তরে ৩২০টি লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালানো হয়েছে। আর ফিলিস্তিনি ভূমি থেকে ৬০০ রকেট হামলা চালানো হলেও বেশিরভাগই প্রতিহত করা হয়েছে। এদিকে ফিলিস্তিনি ভূমিতে হামলা জোরালো করার নির্দেশ দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী। গাজার কর্মকর্তাদের দাবি, গত দুই দিনে ইসরায়েলি বিমান হামলায় ২৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আর ফিলিস্তিনি রকেট হামলায় চার নাগরিক নিহতের দাবি করেছে ইসরায়েল। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, গত কয়েক বছরের মধ্যে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনি প্রতিরোধকারীদের মধ্যে এটা অন্যতম তীব্র লড়াই।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, শুক্রবার নতুন করে সহিংসতা শুরুর পর জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের একাংশ উত্তেজনা প্রশমনের আহ্বান জানিয়েছিলেন। রোববার রাতে জাতিসংঘ, কাতার ও মিসর অস্ত্রবিরতির জন্য মধ্যস্থতার উদ্যোগ নেয়। সোমবার সকালে ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, অস্ত্রবিরতিতে তারা সম্মত হয়েছেন। সোমবার স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে চারটা থেকে এই অস্ত্রবিরতি কার্যকর হবে। তবে এই বিষয়ে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষের কোনও নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি। রোববার রাতজুড়েই বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে দখলদার ইসরায়েল।

ইসরায়েলি আগ্রাসন প্রতিরোধের ধারাবাহিকতায় গাজা উপত্যকায় দশ বছরের বেশি সময় ধরে চলা অবরোধের প্রতিবাদে শুক্রবার আবারও বিক্ষোভে নামে ফিলিস্তিনিরা। ওই বিক্ষোভের মধ্য থেকে এক ফিলিস্তিনির ছোড়া গুলিতে সীমান্ত বেড়ার কাছে দুই সেনা আহত হওয়ার দাবি করে ইসরায়েল। এর জবাবে বিমান হামলা চালিয়ে দুই ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়। ওই দুই ফিলিস্তিনিকে সন্ত্রাসী আখ্যা দেয় ইসরায়েল।

এ ঘটনার জেরে শনিবার সকাল থেকে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলি ভূমি লক্ষ্য করে রকেট ছোড়া শুরু হয়। ইসরায়েলের আয়রন ডোম ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বহু রকেট প্রতিহত করতে পারলেও বেশ কয়েকটি ইসরায়েলের বিভিন্ন শহর ও গ্রামে আঘাত হানে। এসব রকেট হামলায় তিন ইসরায়েলি নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত অন্তত ২৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এদের বেশিরভাগই নিহত হয়েছেন রোববার।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বাংলা ট্রিবিউন
All Rights Reserved