।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজ মামলাটি করেন।

মামলায় অপর দুইজন আসামী হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়টির রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারী এবং আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের যোগদান করা আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম।

আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার পরও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগে সভাপতি নিয়োগ দেয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাদীপক্ষের আইনজীবী নূরে কামরুজ্জামান ইরান বলেন, গত ২১ এপ্রিল আদালতে ৬৭/১৯ নম্বর মোকদ্দমায় বাদী অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা প্রার্থনা করলে ২৪ এপ্রিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের সভাপতি নিয়োগে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেন আদালত। এরপর ২৫ এপ্রিল সকাল ৯টা ৫ মিনিটে আদালতের নিষেধাজ্ঞার কপি রাবির রেজিস্ট্রার দপ্তরে পৌছে দেয়া হয়।

কিন্তু রেজিস্ট্রার অফিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা তার কাছ থেকে নিষেধাজ্ঞার কপি নেননি। ওই সময়ে তাকে বসিয়ে রেখেছেন। অপমানজনক কথা বলেছেন এবং যখন ৯টা ৫৫ মিনিটে জিজ্ঞেস করা হয়েছে প্রশাসন কপিটি নেবেন কি-না? তখন নেয়া হয়েছে এবং তাকে আবারো অপমানজনক কথা বলা হয়েছে।

তাই দেওয়ানি কার্যবিধি আইনের আদেশ ৩৯ ধারাবিধি ২ এর ৩ মতে কেন তাদেরকে সিভিল জেলে ৬ মাস আটক করা হবে না বা তাদের সম্পত্তি ক্রোক করা হবে না এই মর্মে মামলা দায়ের করা হয়।

জানতে চাইলে আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজ মামলা দায়েরের কথা স্বীকার করে জানান, আদালত অবমাননা করায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি। এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. এম এ বারী মামলার বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাননি।