।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

বিশ্বকাপের আগে দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য আসছে একের পর এক দুঃসংবাদ। নতুন ধাক্কা হয়ে এসেছে কাগিসো রাবাদার চোট। পিঠের ইনজুরিতে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এবারের আসর শেষ হয়ে গেছে প্রোটিয়া পেসারের। চলতি আইপিএলে দুর্দান্ত সময় কাটাচ্ছিলেন রাবাদা। দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে ১২ ম্যাচে ২৫ উইকেট নিয়ে এবারের আসরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি তিনি। গত বুধবার চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে দিল্লির ম্যাচে খেলা হয়নি তার। ‘সামান্য সমস্যা’ থাকায় প্রোটিয়া পেসার খেলতে পারছেন না, তেমনটাই জানানো হয়েছিল তখন। তবে এখন রাবাদা নিশ্চিত করেছেন, চোটের কারণে দেশে ফিরে যেতে হচ্ছে তাকে।

প্লে অফ নিশ্চিত করা দিল্লির হয়ে শিরোপা দৌড়ে থাকতে না পারায় হতাশা ঝরেছে এই পেসারের কণ্ঠে। তিনি বলেছেন, ‘টুর্নামেন্টের এই পর্যায়ে এসে দিল্লি ক্যাপিটালস ছেড়ে যাওয়াটা আমার জন্য ভীষণ হতাশার। তবে বিশ্বকাপ আসতে এক মাস বাকি থাকায় সবার সম্মিলিত সিদ্ধান্তে এটা করতে হয়েছে।’

সঙ্গে যোগ করেছেন, দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে এটা আমার দুর্দান্ত মৌসুম, সেটা যেমন মাঠে, তেমনি মাঠের বাইরে। আমি বিশ্বাস করি আমাদের দল এবার শিরোপা জিততে পারবে। রাবাদার চোট দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে বড় এক ধাক্কাই। ইংল্যান্ডের আসরে প্রোটিয়াদের পেস আক্রমণে কেউই ফিট নন এই মুহূর্তে। মাত্র দুই ম্যাচ খেলে কাঁধের চোটে ডেল স্টেইনের আইপিএল শেষ হয়ে যায়।

স্কোয়াডে থাকা অন্য দুই পেসার লুঙ্গি এনগিদি ও আনরিখ নোর্টির চোট আগে থেকেই। আইপিএল শুরুর আগে তারা নিজেদের সরিয়ে নেন। সাইড স্ট্রেইনের চোট থেকে সেরে ওঠার কাজ করছেন ‍এনগিদি, আর নোর্টি মাঠের বাইরে কাঁধের ইনজুরিতে।