।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ভারতে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ফণি ঘণ্টায় ১৭৫ কিলোমিটার বাতাসের গতি নিয়ে ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়েছে।

ওড়িশার রাজধানী ভুবনেশ্বর এবং পুরীতে প্রচণ্ড ঝড়ো বাতাসের সঙ্গে ভারি বর্ষণ হচ্ছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে এই ঘূর্ণিঝড় তীর্থ নগরী পুরীর ২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ দক্ষিণপশ্চিমে গোপালপুর আর চাঁদবালির মাঝামাঝি এলাকা দিয়ে ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করে।

ওই সময় বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৭৫ থেকে ১৮৫ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৯৫ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।

স্থানীয় সময় সকাল ১১টা নাগাদ ফণীর ওড়িশা অতিক্রম করে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া অফিস।

এদিকে, ফণীর প্রভাবে অন্ধ্রপ্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো বাতাস এবং বৃষ্টি শুরু হয়েছে বলে জানায় এনডিটিভি।

ওড়িশা থেকে ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর-পশ্চিমে অগ্রসর হবে এবং অপেক্ষাকৃত দুর্বল হয়ে শনিবার ভোরের দিকে পশ্চিমবঙ্গ অতিক্রম করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

ফণির কারণে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের পর থেকেই ভুবনেশ্বর বিমানবন্দর বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কলকাতা বিমানবন্দরও শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে দুই শতাধিক ফ্লাইট।

ঘূর্ণিঝড়ে নিরাপত্তা উদ্বেগে ট্রেন চলাচলও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।  ইস্ট কোস্ট রেলওয়ে শনিবার পর্যন্ত তাদের ১৪৭টির বেশি ট্রেন বাতিল ঘোষণা করেছে।