।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণ করার প্রশ্নে যুক্তরাজ্যের আদালতে শুনানি শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ মে) ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ সংক্রান্ত শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। সে সময় যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পিত হওয়ার ব্যাপারে অসম্মতি জানান অ্যাসাঞ্জ। তিনি বলেন, আত্মসমর্পণের কোনও ইচ্ছা নেই। জনসাধারণের সুরক্ষা নিশ্চিতের জন্যই তিনি সাংবাদিকতা করেছেন এবং এর জন্য প্রত্যর্পিত হতে তিনি রাজি নন। আগামী ৩০ মে পর্যন্ত শুনানি মুলতবি ঘোষণা করেছে আদালত। 

২০১২ সালের জুন থেকে লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাসে রাজনৈতিক আশ্রয়ে ছিলেন উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। গত ১১ এপ্রিল রাজনৈতিক আশ্রয় প্রত্যাহার করে তাকে ব্রিটিশ পুলিশের হাতে তুলে দেয় ইকুয়েডর। তারা জানায়, যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণের অনুরোধ সাপেক্ষেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ১১ এপ্রিল তাকে জামিনের শর্ত ভঙ্গের দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে ব্রিটিশ আদালত। তখন থেকে বেলমার্শ নামক ‘যুক্তরাজ্যের গুয়ানতানামো বে’ খ্যাত কুখ্যাত কারাগারে রাখা হয়েছে তাকে। ১ মে অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে ৫০ সপ্তাহের সাজা ঘোষণা করা হয়। আর তার একদিন পরই (২ মে) যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণের ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে শুনানি শুরু করেছে ব্রিটিশ আদালত।

বৃহস্পতিবার বেলমার্শ কারাগার থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অনুষ্ঠিত শুনানিতে যোগ দেন অ্যাসাঞ্জ।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বাংলা ট্রিবিউন
All Rights Reserved