।। অঞ্জন রায়, জি নিউজ, কলকাতা ।।

পশ্চিমবঙ্গ থেকে প্রার্থী হচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী? দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সভার পরই উসকে উঠেছে জল্পনা। সূত্রের খবর, রাজ্যের বাকি আসনগুলির মধ্যে কোনও একটিতে প্রার্থী হওয়ার জন্য নরেন্দ্র মোদীর কাছে আবেদন জানিয়েছে বঙ্গ বিজেপি।

উল্লেখ্য, এবার লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির কাছে পাখির চোখ বাংলা। পশ্চিমবঙ্গে ‘পদ্মবাগান’ তৈরিতে মরিয়া গেরুয়া শিবির চাইছে, মোদীকেই মুখ করে এগোতে। আর তাই প্রধানমন্ত্রীকেই প্রধান কাণ্ডারি করে রাজ্যে ভোট বৈতরণী পার করতে চাইছে বঙ্গ বিজেপি। প্রসঙ্গত, রাজ্যে এখনও পর্যন্ত তিন দফায় মোট ৩৯টি আসনের প্রার্থী ঘোষণা করেছে বিজেপি। রাজ্যে লোকসভা আসন মোট ৪২টি। অর্থাত্, আরও ৩টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা এখনও বাকি রয়েছে বঙ্গ বিজেপির। শেষের দুদফার কোনও আসনে প্রার্থী হওয়ার জন্য মোদীকে অনুরোধ করেছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব।

এদিন বুনিয়াদপুরের সভায় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া আক্রমণ করেন নরেন্দ্র মোদী। অন্যদিনের থেকে এদিন প্রধানমন্ত্রীর সুর ছিল অনেকটাই চড়া ও ভিন্ন। সভায় মোদী সাফ বলেন, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একসময় ‘ভালো মানুষ’ ভেবেছিলেন। কিন্তু, এখন ‘স্বীকার’ করছেন যে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘ভুল’ বুঝেছিলেন। মোদীর এই কথার সূত্র ধরেই রাজ্য বিজেপি বাংলা থেকে লড়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে প্রস্তাব দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়।

এরপর সভা শেষ করে জনতার উদ্দেশে হাত নাড়তে নাড়তে মোদী যখন মুকুল রায়ের কাছে এগিয়ে আসেন, তখনই তাঁকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে লোকসভায় প্রার্থী হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। মুকুল রায়ের সঙ্গেই ছিলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তাঁরা সরাসরি নরেন্দ্র মোদীকে প্রস্তাব দেন বাংলা থেকে লড়ার জন্য। মোদীকে বলা হয়, প্রথম দু-দফার ভোটের পরই পরিস্থিতিটা অনেকখানি পরিষ্কার। এই পরিস্থিতি তিনি যদি বাংলা থেকে লড়েন, তাহলে তার গুরুত্ব অনেকখানি বেড়ে যাবে।