।। এএফপি/বাসস, ওয়াশিংটন ।।

মার্কিন আইনপ্রণেতাদের একটি বোর্ড বুধবার জিনজিয়াং অঞ্চলের শীর্ষ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার আহ্বান জানিয়েছেন। সংখ্যালঘু উইঘুর জনগোষ্ঠীর ওপর গণআটকসহ দমনপীড়ন ও নির্যাতনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ আহ্বান জানানো হয়েছে।

২৪ জন সিনেটর ও ১৯ জন হাউস সদস্য স্বাক্ষরিত চিঠিতে চীনা কোম্পানিগুলো এই মানবাধিকার লংঘনে কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করছে কিনা তা খতিয়ে দেখার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

আইনপ্রণেতারা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনকে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির জিনজিয়াংয়ের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকার সেক্রেটারি চেন কোয়াঙ্গুও এর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারির আহ্বান জানিয়েছেন। এর আগে চেন তিব্বতেও একই পদে ছিলেন। অত্যন্ত কঠোরতার সঙ্গে সংখ্যালঘুদের দমনে তার যথেষ্ট কুখ্যাতি রয়েছে।

[interaction id=”5ca5b69f6a636d4ee21631d4″]

জাতিসংঘের তদন্ত কর্মকর্তারা বলেন, জিনজিয়াংয়ের একটি বিশাল এলাকায় প্রায় ১০ লাখ লোককে কার্যত বন্দি করে রাখা হয়েছে। চীনা কর্তৃপক্ষ উইঘুরদের ইসলাম পরিত্যাগ করার জন্য চাপ দিচ্ছে। তাদেরকে জোরপূর্বক ইসলাম ধর্মে নিষিদ্ধ শূকরের মাংস খেতে বাধ্য করা হচ্ছে।

তাদেরকে ওই এলাকা থেকে বের হতে দেয়া হচ্ছে না এবং স্বাধীনভাবে চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে না। তাদের ওপর কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ ও নজরদারী করা হচ্ছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তাকে উদ্দেশ্য করে লেখা ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘জিনজিয়াংয়ে চরম মানবাধিকার লংঘনের ঘটনায় মার্কিন প্রশাসন এখন পর্যন্ত কোন ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করতে ব্যর্থ হওয়ায় আমরা হতাশ।’

[interaction id=”5ca5ba096a636d16611631d8″]

পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ে ট্রাম্পের খুব ঘনিষ্ঠ ফ্লোরিডার রিপাকলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও এবং সিনেটের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির শীর্ষ ডেমোক্র্যাট সদস্য বব মেনেনডেজ স্বাক্ষর করেছেন।

এছাড়াও এতে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রেসিডেন্ট মনোনয়ন প্রত্যাশী সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন, সাবেক রিপাবলিকান দলের পক্ষ থেকে প্রেসিডেন্ট মনোনয়ন প্রত্যাশী সিনেটর মিট রোমনেই ও প্রতিনিধি জেমস ম্যাকগোভেন ও ক্রিস স্মিথ স্বাক্ষর করেন। ক্রিস কংগ্রেসের মানবাধিকার বিষয়ক কমিশনের প্রধান।