।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।   

সৌদি আরবে অস্ত্র বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা আরও ছয় মাস বাড়িয়েছে জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের নেতৃত্বাধীন জোট সরকার।

মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর গত অক্টোবরে সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল জার্মানি।

জার্মান সরকারের ভেতর থেকে ও ইউরোপের দেশগুলো এ নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করেছে। কিন্তু মানবাধিকার সংস্থাগুলোর মেরকেল সরকারের এ নীতিকে স্বাগত জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে জার্মান সরকারের মুখপাত্র স্টেফেন সেইব্রেট বলেন, ৩১ মার্চ থেকে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সৌদি আরবে অস্ত্র রফতানির অনুমোদন স্থগিত করা হয়েছে। গত বছরের অক্টোবরে ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর সাংবাদিক খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমানের হাত রয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো।

তবে জার্মানির এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে তাদের ইইউ অংশীদাররা। কারণ এতে ইউরোফাইটার ও টর্নেডো জেটসহ তাদের যৌথ প্রতিরক্ষা প্রকল্পে এর প্রভাব পড়বে। এসপিডির উপনেতা রাফ স্টেগনার সরকারি টেলিভিশনে বলেন, একনায়ক শাসকের কাছে ও সংঘাতপূর্ণ এলাকায় প্রতিরক্ষা রফতানিতে আমরা বিরোধিতা করেছি।