।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহী অ্যাডভোকেট বার সমিতির নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের ভরাডুবি হয়েছে। ঘোষিত ফলাফলে নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বাম সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ মনোনীত প্রার্থীরা নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করেছেন।

মোট ২১ পদের মধ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ২০ পদেই জয় পেয়েছে এই প্যানেল। শুধু সদস্য পদের একটিতে জয় পেয়েছে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদ। বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহণ শেষে গণনার পর গভীর রাতে ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার শেখ জাহাঙ্গীর আলম।

ঘোষিত ফল অনুযায়ী, নির্বাচনে টানা তৃতীয়বারের মতো সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হলেন যথাক্রমে অ্যাডভোকেট লোকমান আলী ও একরামুল হক। লোকমান আলী ভোট পেয়েছেন ২৯১টি। তার প্রতিদ্বন্দ্বি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল থেকে এনামুল হক পেয়েছেন ২৩৪ ভোট। একরামুল হক পেয়েছেন ৩২১ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের আবুল হাসনাত বেগ পেয়েছেন ২১২ ভোট।

আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ থেকে বিজয়ী অন্যরা হলেন, সহসভাপতি সুনির্মল সাহা, সৈয়দা মর্জিনা খাতুন ও এন্তাজুল হক বাবু, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক শিরাজী শওকত সালেহীন এলেন ও সাজেমান আলী, সম্পাদক (হিসাব) আখতারুল আলম বাবু, সম্পাদক (লাইব্রেরি) মোহাম্মদ আলী, সম্পাদক (অডিট) হেলাল আহমেদ, সম্পাদক (প্রেস অ্যান্ড ইনফরমেশন) জালাল উদ্দীন ও সম্পাদক (ম্যাগাজিন অ্যান্ড কালচার) মমতাজ খানম।

এছাড়া এই প্যানেল থেকে সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন, আসির উদ্দীন, শফিকুল ইসলাম রেন্টু, আহসান হাবিব রঞ্জু, মিজানুর রহমান বাদশা, ইমাম হাসান, শেখ তোজাম্মেল আহমেদ, সাদিকুল ইসলাম ও সুমা খাতুন। এই প্যানেল থেকে শুধু সদস্য পদে গোলাম মাওলা পরাজিত হয়েছেন। এই একটি পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের প্রার্থী মনোয়ারা বেগম বিজয়ী হয়েছেন।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। দুপুরে ১ ঘণ্টা বিরতি থাকে। এরপর আবার ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকাল ৫টায় শেষ হয়। নির্বাচনে ৫৭৮ জন ভোটারের মধ্যে ৫৪১ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ভোটগ্রহণের জন্য ১ নম্বর বার ভবনের দ্বিতীয় তলায় ২২টি বুথ স্থাপন করা হয়। নির্বাচনে ২১ পদের বিপরীতে দুই প্যানেল থেকে ৪২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।