বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকা

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের নয়া হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস ঢাকা পৌঁছেছেন। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি ফ্লাইটে করে তিনি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। এসময় তাকে স্বাগত জানাতে বিমানবন্দরে ছিলেন ঢাকাস্থ ভারতীয় দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ।

গেলো অক্টোবরেই ঠিক হয়েছিলো রাষ্ট্রদূত হয়ে ঢাকায় আসবেন বাঙালি কূটনীতিক রিভা। এর আগে দায়িত্বপালনকারী হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা যুক্তরাষ্ট্রে দেশটির রাষ্ট্রদূত হিসেবে গেলো জানুয়ারিতে দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন।

জানুয়ারিতে হর্ষবর্ধন শ্রিংলা যুক্তরাষ্ট্রে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন শুরু করেন।

রিভা গাঙ্গুলির বাংলাদেশে দায়িত্বপালন এটাই প্রথম নয়। এর আগে তিনি ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশন্সের (আইসিসিআর) প্রধান হিসেবে ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনে কাজ করে গেছেন। সে কারণে এবার ঢাকায় নেমেই তিনি জানালেন, আবার আসতে পেরে তিনি আনন্দিত। সাংবাদিকদের বলেন, আমি ঢাকায় নতুন নই। তবে হাইকমিশনার হিসেবে নতুন। বাংলাদেশ ভারতের মধ্যে আরও গভীরতর এবং আরও ভালো সম্পর্ক তৈরির চেষ্টা করব।

দুয়েকদিনের মধ্যেই কূটনৈতিক রীতি মেনে রিভা গাঙ্গুলি বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির কাছে নিজের পরিচয়পত্র পেশ করবেন। এরপর ঢাকায় ভারতের ষোড়শ হাইকমিশনার হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন শুরু করবেন বলে নিশ্চিত করেছে ভারতীয় হাইকমিশনের সূত্রগুলো।

রিভা গাঙ্গুলি দাস

ঢাকায় আসার আগে রিভা গাঙ্গুলি ভারতীয় কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশন্সের (আইসিসিআর) মহাপরিচালক ছিলেন।

১৯৮৬ সালে পেশাদার কূটনীতিক হিসেবে যোগ দেয়ার আগে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। রিভা ওই বিশ্ববিদ্যালয়েই শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

স্পেনে শুরু করা ৩৩ বছরের কূটনৈতিক জীবনে সাউথব্লকে বহিঃপ্রচার, নেপাল এবং পাসপোর্ট ও ভিসাসংক্রান্ত বিভাগে দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হয়ে জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক সম্পর্ক বিভাগের পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন এবং জলবায়ু পরিবর্তনসহ অন্যান্য পরিবেশগত সমঝোতায় অংশ নেন।

নেদারল্যান্ডসের হেগে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের উপপ্রধানের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তিনি সাংহাইয়ে ভারতীয় কনসাল জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চীন থেকে ফিরে রিভা বিদেশ মন্ত্রণালয়ে জনকূটনীতি বিভাগ এবং ল্যাটিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান বিভাগের নেতৃত্ব দেন।

পাশাপাশি রোমানিয়া, আলবেনিয়া ও মলদোভায় ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হিসেবে এবং পরবর্তীতে নিউইয়র্কে ভারতের কনসাল জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি এবং স্প্যানিশ ভাষায় পারদর্শী এ অভিজ্ঞ কূটনীতিক।