বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে যেন ‘লুকোচুরি’ খেলা হচ্ছে। এক মামলায় জামিন নিলে অন্য মামলায় জামিন বাতিল করা হচ্ছে। হাইকোর্ট জামিন দিলে আপিল বিভাগ আবার জামিন স্থগিত করছেন।

আপিল বিভাগ জামিন দিলে নিম্নআদালত আরেকটি মামলায় জামিন আটকে দিচ্ছেন। এমনই করে পার হয়ে গেছে একটি বছর।

তিনি বলেন, এক বছর হলো সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীকে কারারুদ্ধ করে রেখে অত্যাচার করছেন। এবার মুক্তি দিন। ইতিহাস পড়ুন, ইতিহাস বড় নির্মম। ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না।

বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ছাড়াও কারাবন্দি হাজার হাজার নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান রিজভী।

রিজভী বলেন, খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ। তার চোখেও প্রচণ্ড ব্যথা, পা ফুলে গেছে। অথচ তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, কিছু দিন ধরে নাজিমউদ্দিন রোডের পরিত্যক্ত কারাগারের নিচতলায় ছোট্ট একটি কক্ষে অস্থায়ী ‘ক্যাংগারু’ আদালত সাজিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে সেখানে টেনে এনে জোর করে বিভিন্ন ভুয়া মামলায় শুনানি করা হচ্ছে।

বিএনপির এ নেতা বলেন, যেসব মামলায় অন্যরা জামিনে রয়েছেন, সেখানে খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। এমনকি প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে তাকে চিকিৎসাসেবা পর্যন্ত দিতে সুযোগ দিচ্ছে না সরকার।