পড়তে পারবেন < 1 মিনিটে Berger Weather Coat

শোবিজ প্রতিবেদন

ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। গত ৫ বছর আগে ভিক্টর ঘোষ নামের একজনের সঙ্গে তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন বলে কলকাতার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে জোর গুঞ্জন রয়েছে। কিন্তু গত বছর নাকি তাদের সম্পর্কে অবনতি হয়। এরপর আরেকটি সম্পর্কে জড়ান নুসরাত। এখন শোনা যাচ্ছে এক শাড়ি ব্যবসায়ীর সঙ্গে নুসরাতের বিয়ের কথা। আর সে কারণে আগের স্বামীকে ডির্ভোস দিয়েছেন নায়িকা।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে জানা যায়, যে সম্পর্ক তিনি কোনও দিনই স্বীকার করেননি, সেই সম্পর্ক থেকে নাকি অবশেষে আইনিভাবে মুক্তি পেলেন নুসরাত! শোনা যাচ্ছে, গত সপ্তাহে নুসরাত জাহান এবং ভিক্টর ঘোষের মধ্যে আইনি বিচ্ছেদ হয়ে গেছে।

প্রায় পাঁচ বছর ধরে নুসরাত এবং ভিক্টর দম্পতি। কিন্তু তাঁদের এই বিয়ের কথা কোনও দিনই প্রকাশ্যে আনেননি নায়িকা। ভিক্টরকে স্রেফ তাঁর ভাল বন্ধু হিসেবে পরিচয় দিতেন। কিন্তু গত বছর ভিক্টরের সঙ্গে নুসরাতের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। নায়িকার সঙ্গে এক প্রযোজকের ঘনিষ্ঠতা এবং তারপর এক শাড়ি ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রেম— সব মিলিয়ে বিষয়টি ক্রমশ জটিল হয়ে যায়। ভিক্টরের কাছ থেকে বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন নুসরাত। শোনা যাচ্ছে, ডিভোর্স দেওয়ার জন্য নুসরাতের কাছে ভিক্টর মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করেছিলেন। চলতি বছরেই শাড়ি ব্যবসায়ীর সঙ্গে নুসরতের বিয়ের কথাও শোনা যাচ্ছে। সুতরাং ডিভোর্স পাওয়াটা নায়িকার দিক থেকে খুব জরুরি হয়ে পড়েছিল।

তবে নুসরাত বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, যাঁরা আমার ডিভোর্স নিয়ে কথা বলছেন, আমার বিয়েতে কি তাঁরা খেতে এসেছিলেন? ইদানিং আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অনেক গুজব রটেছে।