পড়তে পারবেন < 1 মিনিটে

বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন

প্রধান শরিক হলেও বিএনপির প্রতিনিধির অনুপস্থিতিতেই হয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জরুরি বৈঠক। বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) বিকাল ৫টার দিকে মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে বৈঠক শুরু হয়। ৫টা ৫০ মিনিটে বৈঠক শেষ হয়। এতে বিএনপির কোনও প্রতিনিধিই অংশ নেননি।

এ বিষয়ে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটি ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি মিটিংয়ের খবর জানি না। আমাকে জানানো হয়নি, এটা আমি বলতে পারি। তাই বলতে পারবো না কিসের মিটিং।

ঐক্যফ্রন্ট সূত্র জানায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর কর্ম-কৌশল নির্ধারণ এবং জাতীয় সংলাপের বিষয়ে আলোচনা করতে বৈঠকে বসেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। রাজধানীর মতিঝিলে ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে বিকাল ৪টায় শুরুর কথা থাকলেও বিকাল ৫টার দিকে বৈঠক শুরু হয়।

ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জেএসডি’র সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, ঐক্যফ্রন্টের নেতা সুলতান মোহাম্মাদ মুনসুর প্রমুখ।

সন্ধ্যা পৌনে ছয়টা পর্যন্ত বৈঠকে বিএনপির কোনও প্রতিনিধি অংশ নিতে আসেননি। এছাড়া কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকীও বৈঠকে অংশ নেননি। এ বিষয়ে জানতে  বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ফোন দেওয়া হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Berger Weather Coat