Loading...
উত্তরকাল > Content page > সারাবেলা > রিজার্ভ চুরির মামলা এ মাসেই

রিজার্ভ চুরির মামলা এ মাসেই

পড়তে পারবেন 2 মিনিটে
বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় চলতি মাসেই মামলা করা হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক ৩ ফেব্রুয়ারির আগেই যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে মামলা করবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) প্রধান আবু হেনা মোহাম্মদ রাজি হাসান।

সোমবার যুক্তরাষ্ট থেকে ফিরে মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) আবু হেনা বলেন, ‘ইতোমধ্যে মামলার সব বিষয় আমরা গুছিয়ে এনেছি। নির্ধারিত সময়ের আগেই মামলা করা হবে। ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করতে চাই না।’

তিনি আরও বলেন, ফিলিপাইনের আদালত মায়া দেগুইতোকে ৩২-৫৬ বছরের কারাদণ্ড  এবং  উত্তর কোরিয়ার নাগরিক পার্ক জিন হিয়কের জড়িত থাকার বিষয়টি সামনে রেখে মামলাটি সাজানো হচ্ছে। এই মামলার মাধ্যমে চুরি যাওয়া অর্থ ফেরত পাওয়ার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। ব্যাংকিং সচিবের নেতৃত্বে একটি আনুষ্ঠানিক মিশন বর্তমানে নিউ ইয়র্কে অবস্থান করছে। হ্যাকিংয়ে জড়িত ফিলিপাইনের ব্যাংক আরসিবিসি’র বিরুদ্ধে সম্ভাব্য আইনি ব্যবস্থা কী হতে পারে তা নির্ধারণই এই মিশনের উদ্দেশ্য। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মামলায় ম্যানিলাভিত্তিক রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনকে (আরসিবিসি) দায়ি করে মামলা সাজানো হচ্ছে। এর আগে গত নভেম্বরে ফেডের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে চিঠি দিয়ে বলা হয়েছে, ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্ক (ফেড) বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির অর্থ উদ্ধারে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। ফেডের পক্ষ থেকে এ ধরনের আশ্বাস পাওয়ার ব্যাপারটি ইতিবাচক হিসেবে নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। চুরি যাওয়া অর্থ ফিরে পেতে আরও আগেই যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে মামলা করা উচিত ছিল বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড সালেহ উদ্দিন আহমেদ। বাংলাদেশ ব্যাংক প্রমাণ করতে চাচ্ছে রিজার্ভ চুরির সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনও কর্মকর্তা দায়ি নন, তবে ফিলিপাইন মনে করে বাংলাদেশ ব্যাংকের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা জড়িত রয়েছে। দেশটি এক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাস উদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত কমিটির প্রতিবেদনকে রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করছে। এ প্রসঙ্গে ফিলিপাইন থেকে অর্থ ফেরত আনার প্রক্রিয়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক কর্মকর্তা  বলেন, মামলার মাধ্যমে চুরি যাওয়া অর্থ ফিরিয়ে আনার সম্ভাবনা থাকলেও ফরাস উদ্দিনের ওই প্রতিবেদন এক্ষেত্রে কিছুটা বাধার সৃষ্টি করতে পারে।সিস্টেম হ্যাক করে ২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ অ্যাকাউন্ট থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি করা হয়। হ্যাকাররা ওই অর্থ ফিলিপাইনের আরসিবিসি ব্যাংকের জুপিটার স্ট্রিট শাখার চারটি অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করে। সেখান থেকে ওই অর্থ ফিলিপাইনের মুদ্রা পেসোতে রূপান্তরের পর দুটি ক্যাসিনোতে পাঠানো হয়। রিজার্ভ চুরির এই ঘটনায় দোষী প্রমাণ হওয়ায় গত ১০ জানুয়ারি আরসিবিসির সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক মায়া দেগুইতোকে সাজা দেন ফিলিপাইনের আদালত। এছাড়াও তাকে সর্বমোট ১০ কোটি ৯০ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়েছে।

সবশেষ আপডেট

উত্তরকাল

বিশ্বকে জানুন বাংলায়

Follow US

All original content on these pages is fingerprinted and certified by Digiprove
%d bloggers like this: